ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম | Walton Ceiling Fan Price in Bangladesh 2023

Spread the love

প্রিয় বন্ধুরা এই গরমে হয়তো বেশি ভালো নেই। বর্তমানে অনেক গরম তাই আমরা প্রতিনিয়ত ভালো থাকার জন্য ফ্যানের বাতাস উপভোগ করে থাকি। তাই সব সময় গরমের সময় আমরা একটু  শীতল ও ঠান্ডা বাতাস পেতে পছন্দ করে থাকি। তাই আজ আমি আপনাদের জন্য একটি ভালো সিলিং ফ্যানের ব্রান্ড সম্পর্কে জানাতে যাচ্চি। সেটি হল ওয়ালটন সিলিং ফ্যান । তাই আজ ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম ও বিস্তারিত সম্পর্কে জানাবো।

ওয়ালটন সিলিং ফ্যানগুলো ৩৬, ৪৮, ৫৬ ইঞ্চি সাইজের হয়ে থাকে। ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম প্রায় ১৭৩০ থেকে ২৬৫০ পর্যন্ত হয়ে থাকে। ওয়ালটন সিলিং ফ্যান বর্তমান বাজারে অন্যান্য সাধারণ ফ্যানের থেকে অনেক বেশি বাতাস প্রদান করে থাকে অনেক। তাই আমি আপনাদের সুবিধার জন্য সকল ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম নিয়ে আলোচনা করব।

ওয়ালটন ব্রান্ডের সেলিং ফ্যান বর্তমান বাজারে অন্যান্য সকল ফ্যানের থেকেও আলাদা ও অনেক জনপ্রিয়। ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের তারের কয়েল অনেক ভালো টেকনোলজি দিয়ে তৈরীকৃত তামা দিয়ে তৈরি।

বর্তমান বাজারে সিলিং ফ্যানের গুনগত মান ধরে রাখতে ওয়ালটন সিলিং ফ্যান অনেক উন্নত কোয়ালিটির তামা দিয়ে ফ্যানের কয়েল তৈরী করে থাকে। যাতে দীর্ঘক্ষণ চললেও ফ্যান নষ্ট হয়ে না যায়।

ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম ২০২৩ | Walton 36, 48, 56 Ceiling Fan Price in Bangladesh 2023

ওয়ালটন কোম্পানিতে শুধু ফ্যান ছাড়াও অন্যান্য আরো অনেক ইলেকট্রনিক্স ও ব্যবহারিক সামগ্রী তৈরি করে থাকে।  তবে ওয়ালটন ফ্যানে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি দ্বারা কপার কয়েলের ব্যবহারের ফলে ওয়ালটন ফ্যান টেকশন অনেক বেশি।

আর এই জন্যই ওয়ালটন কোম্পানীর ফ্যানগুলোতে ৪-৫ বছরের গ্যারেন্টি হয়ে থাকে। চলুন তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম জানা যাক।

ওয়ালটন ৩৬ সিলিং ফ্যান দাম | Walton 36 Ceiling Fan Price in Bangladesh

ওয়ালটন ৩৬ সিলিং ফ্যানের দাম ২২০০ টাকা। তবে বর্তমান বাজারে প্রতিদিন ওয়ালটন ফ্যানের দাম বেড়েই চলছে। আপনার এলাকার দোকানে কিছুটা দাম কম বেশি হতে পারে। এক্ষেত্রে যাচাই করে কেনার দায়িত্ব আপনার।

  • সাইজঃ ৩৬ ইঞ্চি
  • ফিকুয়েন্সিঃ ৫০Hz
  • ভোল্টেজঃ ২২০ ভোল্ট
  • পাওয়ার ফেক্টরঃ  ০.৯০
  • স্পিডঃ ৩২০ আর পি এম
  • ওয়াটঃ ১০০
  • পাখার সাইজ: ৩৬ ইঞ্চি
  • গতি (RPM): 320
  • উচ্চতর মানের অ্যালুমিনিয়াম দিয়ে তৈরী।
  • ভালো মানের বৈদ্যুতিক ইস্পাত শীট এবং 99.9% বিশুদ্ধ কপার তার।
  • বৈদ্যুতিক শক এবং ভোল্টেজ ওঠানামা থেকে রক্ষা করার জন্য ভালো মানের বার্নিশ নিরোধক।
  • সর্বাধিক বায়ু সরবরাহের জন্য অ্যারোডাইনামিক্যালি ডিজাইন করা ব্লেড।
  • উচ্চতর সমাপ্তি জন্য উচ্চ মানের পেইন্ট

ওয়ালটন ৪৮ সিলিং ফ্যান দাম | Walton 48 Ceiling Fan Price in Bangladesh

ওয়ালটন ৪৮ সিলিং ফ্যান দাম ২৩৫০ টাকা। তবে আপনার বাজারে এই ওয়ালটন ফ্যানটির দাম কিছুটা দাম কম বেশি হতে পারে। তাই এখান থেকে আনুমানিক ধারণা নিতে পারেন।

  • ব্রান্ডঃ ওয়ালটন
  • সাইজ: 1400 মিমি
  • পাখার সাইজঃ ৪৮
  • ভোল্টেজঃ 220 V।
  • ওয়াটঃ 90 ওয়াট
  • ফ্রিকোয়েন্সিঃ 50 Hz।
  • গতি (RPM)ঃ 320
  • পাওয়ার ফ্যাক্টরঃ 0.90
  • বাতাস ডেলিভারি পরিমাণঃ 220 m³/মিনিট
  • ভালো কোয়ালিটি মানের রং।
  • ওয়্যারেন্টি: 3 বছর
  • বাংলাদেশে তৈরি।

ক্যানন প্রিন্টার দাম সম্পর্কে জানতে এই পোস্টটি দেখতে পারেন।

ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম ৩৬ ইঞ্চি ২২০০ টাকা
ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম ৪৮ ইঞ্চি ২৩৫০ টাকা
ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম ৫৬ ইঞ্চি ২৬৫০ টাকা

ওয়ালটন ৫৬ সিলিং ফ্যান দাম | Walton 56 Ceiling Fan Price in Bangladesh

ওয়ালটন পপুলার ৫৬ সিলিং ফ্যানের দাম ২৬৫০ টাকা। তবে বর্তমান বাজারে প্রতিদিন ওয়ালটন ফ্যানের দাম বেড়েই চলছে। আপনার এলাকার দোকানে কিছুটা দাম কম বেশি হতে পারে।

  • ব্র্যান্ড: ওয়ালটন
  • ব্লেড: 03 অ্যালুমিনিয়াম ব্লেড
  • ফ্যানের গতিঃ 315 rpm
  • বডিঃ  অ্যালুমিনিয়াম
  • মোটর: 100% কপার কয়েল
  • উচ্চ-গ্রেড অ্যালুমিনিয়াম নির্মাণ
  • পাখার সাইজঃ 56 ইঞ্চি
  • আরপিএমঃ 330
  • বাতাস ডেলিভারি: 250 m3/মিনিট
  • রঙ: অফ-সাদা
  • শক্তি: 80 ওয়াট
  • উপাদান: অ্যালুমিনিয়াম।
  • বাংলাদেশে তৈরি।

আপনার জন্য আরোঃ গ্যাসের এক চুলার দাম কত | গ্যাসের চুলার দাম ২০২৩

আরো জানতেঃ> ডাবল গ্যাসের চুলার দাম বাংলাদেশ ২০২৩

আপনার জন্য আরোঃ>>  ১০০+ বিদেশি ফুলের ছবি নাম | ফুলের ফটো

 ঘানার টাকার মান কত জানতে দেখুনঃ ঘানার টাকার মাত কত

ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের কিছু বৈশিষ্ট্য

  1. শক্তি-সাশ্রয়ী প্রযুক্তি: ওয়ালটন সিলিং ফ্যানগুলি শক্তি খরচ কমাতে এবং বিদ্যুৎ বিল বাঁচাতে উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে।
  2. উচ্চ-গতির কর্মক্ষমতা: ওয়ালটন সিলিং ফ্যানগুলি আরামদায়ক এবং শান্তিপূর্ণ পরিবেশ জন্য কম শব্দের সাথে উচ্চ-গতির কর্মক্ষমতা প্রদানের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে।
  3. সহজ ইনস্টলেশন: ওয়ালটন সিলিং ফ্যানগুলি সহজ ইনস্টলেশন নির্দেশাবলী নতুন ফ্যানের সাথে দেওয়া থাকে এবং সহজেই সিলিংয়ে সেট করা যায়।
  4. রিমোট কন্ট্রোল: কিছু ওয়ালটন সিলিং ফ্যান রিমোট কন্ট্রোল বিকল্পের সাথে বাজারে আসে, যা আপনাকে আপনার সোফায় বসে থেকেই ফ্যানের গতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।
  5. ব্লেড ডিজাইন: ওয়ালটন সিলিং ফ্যানে অ্যারোডাইনামিক্যালি ডিজাইন করা ব্লেড রয়েছে যা সারা ঘরে সমান বাতাস প্রদান করে। ব্লেডগুলি উচ্চ-মানের এল্যুমিনিয়াম দিয়ে তৈরি যা স্থায়িত্ব এবং দীর্ঘায়ু অনেকদিন পর্যন্ত থাকে।
  6. মোটর পারফরম্যান্স: ওয়ালটন সিলিং ফ্যান উচ্চ-পারফরম্যান্স মোটর দ্বারা চালিত হয় যা দীর্ঘস্থায়ী চালানো যায়। মোটরগুলিও শক্তি-দক্ষ হতে ডিজাইন করা হয়েছে, ফ্যানের সামগ্রিক শক্তি খরচ কমিয়ে দেয়।
  7. আকারের বিকল্প: ওয়ালটন সিলিং ফ্যান বিভিন্ন সাইজের হয়ে থাকে বিভিন্ন রুমের মাপ অনুসারে। আপনার একটি ছোট বেডরুম বা একটি বড় বসার ঘর হোক না কেন, একটি ওয়ালটন সিলিং ফ্যান আছে যা আপনার চাহিদা মেটাতে পারে।
  8. শৈলী বিকল্প: ওয়ালটন সিলিং ফ্যান যে কোনো ঘরের সাজসজ্জার সাথে মেলে বিভিন্ন স্টাইল এবং রঙে পাওয়া যায়।
  9. ওয়্যারেন্টি: ওয়ালটন সিলিং ফ্যান একটি প্রস্তুতকারকের প্রতিষ্ঠান থেকে ওয়ারেন্টি সহ আসে। যাতে ব্যবহারে সময় কোন ত্রুটি হলে আপনার ক্রেতার কাছ থেকে ফেরৎ দিয়ে ওয়ারেন্টি ক্লাইম করতে পারেন।
  10. শব্দের লেবেল: ওয়ালটন সিলিং ফ্যানগুলি অল্প শব্দে কাজ করার জন্য ডিজাইন করা হয়েছে, উচ্চ গতিতেও ন্যূনতম শব্দ তৈরি করে না।
  11. সহজ রক্ষণাবেক্ষণ: ওয়ালটন সিলিং ফ্যানগুলো দির্ঘদিন চলার কারণে ময়লা হয়ে যায় এক্ষেত্রে যেন সহজে পরিস্কার করা  যায় এজন্য ডিজাইনের দিয়ে খেয়াল রাখা হয়েছে।
    ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের মূল্য: ওয়ালটন সিলিং ফ্যানগুলির দাম সাশ্রয়ী মূল্যের হয়ে থাকে, যা একজন ক্রেতার বাজেটের মধ্যে হয়ে থাকে ৷
  12. এনার্জি এফিসিয়েন্সি রেটিং: ওয়ালটন সিলিং ফ্যানগুলো এনার্জি স্টার রেটিং থাকে। কম বিদ্যুতের বেশি বাতাসের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে। যা আপনাকে সময়ের সাথে সাথে আপনার বিদ্যুৎ বিলের অর্থ বাঁচাতে সাহায্য করতে পারে।

ওয়ালটন সিলিং ফ্যান কেন কিনবেন

ওয়ালটন সিলিং ফ্যান দাম ও বিস্তারিত জানতে অনেকে ইন্টারনেটে সার্চ করে থাকেন তবে সঠিক কোন তথ্য না পাওয়া হতাশ হয়ে যান। এবং এক সময় ওয়ালটন সিলিং ফ্যান কিনার কথা বাদ দিয়ে দেন।

এখন আসি কেন আপনি ওয়ালটন সিলিং ফ্যান কিনবেন। বর্তমানে বাজারে অনেক কোম্পানির সিলিং ফ্যান দেখতে পাওয়া যায়। তবে ওয়ালটন সিলিং ফ্যান সকল ফ্যানের থেকে আলাদা। কারণ এই সিলিং ফ্যানের কপার কয়েলটি বর্তমান বাজারে সবচেয়ে সেটা তাই নিশ্চিন্তে নিতে পারেন।

ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের বাতাস অন্যান্য ফ্যানের তুলনায় বেশি হয়ে থাকে। বর্তমানে বিদ্যুৎ অনেক ঘাটটি থাকায় বিদ্যুৎ ঘাটতি রোধ করতে এই ওয়ালটন সিলিং ফ্যানটি অনেক কম বিদ্যুৎ খরচে চলে।

কিন্তু আজকে আমি আপনাদের জন্য যে ওয়ালটন ফ্যান গুলোর দাম নিয়ে আলোচনা করলাম সে ফ্যানগুলো আপনার বাজারে এর থেকে কিছু টাকা কম অথবা বেশি হতে পারে। তবে যদি অনেক বেশি দাম চায় তবে আপনার মার্কেটের অন্য কোন দোকানে খোজ করুন।

ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের সুবিধা

  • অল্প বিদ্যুতে অনেক বাতাস প্রদান করে।
  • ভালো মানের এল্যুমিনিয়াম দিয়ে তোরী।
  • পাখায় ভালো মানের এল্যুমিনিয়াম ব্যবহারে ফলে পাখা অনেক হালকা হয়।
  • দির্ঘক্ষণ চালালে ফ্যানের কোন সমস্যা হয়না।
  • ফ্যানের কপার কয়েল উন্নতমানের হওয়ার সহজে পুড়ে যাওয়ার ভয় থাকে না
  • বিদ্যুৎ খরচ অন্যান্য ফ্যানের তুলনায় অনেক কম।
  • ফ্যানের পাখায় বডিতে উন্নতমানের রঙ থাকায় সহজে মরিচা আসেনা।
  • ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম অন্যান্য ফ্যানের অনেকটা সাশ্রয়ী মুল্যের হয়ে থাকে।

ওয়ালটন হল একটি জনপ্রিয় ব্র্যান্ডের সিলিং ফ্যান যা বাংলাদেশ সহ অনেক দেশেই এখন পাওয়া যায়। ওয়ালটন সিলিং ফ্যান তাদের স্থায়িত্ব, কর্মক্ষমতা এবং শক্তি দক্ষতার জন্য এত পরিচিতি লাভ করেছে। ওয়ালটন সিলিং ফ্যান বিভিন্ন আকার, ডিজাইন এবং রঙে আসে যা বিভিন্ন বাড়ি বা অফিসের সাজসজ্জার জন্য ব্যবহার করা হয়। তাই ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম একটু বেশি হতে পারে।

ওয়ালটন সিলিং ফ্যান সাধারণত উন্নত বৈশিষ্ট্য যেমন রিমোট কন্ট্রোল, রিভার্সিবল মোটর এবং এলইডি লাইটিং দিয়ে সজ্জিত। আপনি যদি একটি ওয়ালটন সিলিং ফ্যান কেনার কথা ভাবছেন, তাহলে আপনার চাহিদা এবং বাজেটের সাথে সবচেয়ে উপযুক্ত একটি খুঁজে পেতে তাদের বিভিন্ন মডেল, বৈশিষ্ট্য এবং দামের উপর কিছু গবেষণা করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম ও বিশেষ কিছু বৈশিষ্ট্য

  • ওয়ালটন স্ট্যান্ডার্ড, ডেকোরেটিভ এবং ডিজাইনার ফ্যান সহ আরো অনেক সিলিং ফ্যানের মডেল অফার করে।
  • কোম্পানি তাদের পাখা তৈরি করতে তামা, অ্যালুমিনিয়াম এবং স্টিলের মতো উচ্চ-মানের উপকরণ ব্যবহার করে, যা স্থায়িত্ব এবং দীর্ঘায়ু নিশ্চিত করে।
  • ওয়ালটন সিলিং ফ্যানগুলি সর্বনিম্ন শব্দ এবং কম্পনের সাথে সর্বাধিক বায়ু সঞ্চালন প্রদানের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে, যা তাদের শোবার ঘর, বসার ঘর এবং অফিসে ব্যবহারের জন্য উপযুক্ত করে তোলে।
  • কিছু ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের মডেল একটি অন্তর্নির্মিত LED লাইট কিট সহ দেখতে পাওয়া যায়।
  • ওয়ালটন সিলিং ফ্যান সাধারণত সাশ্রয়ী মূল্যের হয়ে থাকে এবং অর্থের জন্য ভাল মূল্য দেয়। ফ্যানের বৈশিষ্ট্য এবং ডিজাইনের উপর নির্ভর করে ।
  • একটি ওয়ালটন সিলিং ফ্যান কেনার সময়, সর্বোত্তম কার্যক্ষমতা এবং বায়ুপ্রবাহ নিশ্চিত করতে আপনার ঘরের আকার, আপনার সিলিংয়ের উচ্চতা এবং ফ্যানের ব্লেডের আকার এবং পিচের মতো বিষয়গুলি বিবেচনা করা গুরুত্বপূর্ণ।
  • ওয়ালটন সিলিং ফ্যানগুলি অনেক দেশে ব্যাপকভাবে পাওয়া যায় এবং আপনি সেগুলি বিভিন্ন অনলাইন খুচরা বিক্রেতা, হোম অ্যাপ্লায়েন্স স্টোর বা সরাসরি প্রস্তুতকারকের ওয়েবসাইট থেকে কিনতে পারেন।

ওয়ালটন সিলিং ফ্যান বিভিন্ন ভালো বৈশিষ্ট্য এবং সুবিধা প্রদান করে যা ইতিমধ্যে অনেক বাড়ির মালিকদের কাছে জনপ্রিয় পছন্দ করে তুলেছে। ওয়ালটন সিলিং ফ্যানগুলি কার্যকারিতা এবং ক্রয়ক্ষমতার একটি দুর্দান্ত।

আপনার বাড়িকে শীতল এবং আরামদায়ক রাখার একটি নির্ভরযোগ্য এবং সুবিধাজনক উপায় করে তোলে। আপনি একটি শক্তি-দক্ষ ফ্যান খুঁজছেন, তাহলে আপনার জন্য ওয়ালটন সিলিং ফ্যানটি আপনার বাসা কিংবা অফিসের জন্য বিশেষ ভূমিকা রাখতা পারে।

ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম সম্পর্কে শেষকথা

বর্তমান বাজারে অনেক নকল ওয়ালটন সিলিং ফ্যান দেখা যাচ্ছে। তাই ১নং ওয়ালটন সিলিং ফ্যান কিনতে চাইলে দোকানদারের সাথে ভালোভাবে বিস্তারিত জেন নিন। তবে আমাদের এই পোস্টটি আপনি যদি মনোযোগ দিয়ে পড়েন তবে বাজারে ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম সম্পর্কে কিছুটা ধারণা থাকবে। Walton 36, 48, 56 Ceiling Fan Price in Bangladesh 2023 দাম সম্পর্কে সর্বশেষ আপডেট পেতে আমাদের পোস্টটি শেয়ার করুন।

তাই আপনাকে সহজে কেউ ঠকাতে পারবে না। আশা করি ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম ২০২৩ বাংলাদেশ এই সম্পর্কে আপনার মোটামুটি ধারণা হয়ে গেছে। ভালো লাগলে পোস্টটি আপনার বন্ধুদের কাছে শেয়ার করুন।

আরো দেখুনঃ আজকের রডের দাম কত ২০২৩। ১ কেজি রডের দাম জানুন